এই দেশেও অস্ত্র মজুদ করছে রাশিয়া!

রাশিয়া অস্ত্র ও রণসরঞ্জাম পার্শ্ববর্তী দেশ বেলারুশে মজুদ করছে বলে অভিযোগ তুলেছে ইউক্রেন। সিএনএন বৃহস্পতিবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।কিয়েভের রাজধানী ঘেরাও করে একটি আক্রমণ চালানোর জন্য নতুন পরিকল্পনার অংশ হিসেবে রাশিয়া ওই অস্ত্র মজুদ করছে বলে দাবি করেছে ইউক্রেনের সশস্ত্র বাহিনী।

ক্রিমিয়াতেও রুশ বাহিনী অস্ত্রের সরবরাহ বাড়াচ্ছে বলে ইউক্রেনের সেনাবাহিনী স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার বিকালে এক বিবৃতিতে জানিয়েছে।
এখন পর্যন্ত রুশ বাহিনীকে ইউক্রেন সাফল্যের সঙ্গে প্রতিহত করছে দাবি করে ওই বিবৃতিতে আরও বলা হয়, রাশিয়ার সামরিক নেতৃত্ব বুঝতে শুরু করেছে যে ইউক্রেনের অস্থায়ীভাবে দখলকৃত অঞ্চলগুলো ধরে রাখা ও হামলা চালিয়ে যাওয়ার জন্য তাদের পর্যাপ্ত সক্ষমতা নেই।

তবুও মন গলল না যুক্তরাষ্ট্রের

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ নিয়ে বৃহস্পতিবার বিশেষ বৈঠকে বসে ন্যাটো সদস্যভুক্ত দেশগুলো। এই বৈঠকে ভার্চুয়ালি কথা বলেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদমির জেলেনস্কি।

তিনি ন্যাটো দেশগুলোর কাছে অনুরোধ করেন, তাদের যে সকল যুদ্ধবিমান ও ট্যাংক আছে তার মধ্যে মাত্র ১ ভাগ ইউক্রেনকে দিতে।
জেলেনস্কি আকুতির সুরে বলেন, আপনাদের কয়েক হাজার যুদ্ধবিমান আছে। কিন্তু আমরা এ বিমানগুলোর মধ্য থেকে একটিও পাইনি।

জেলেনস্কির এমন অসহায় অনুরোধের পরও যুক্তরাষ্ট্রের মন গলেনি। তারা ইউক্রেনে কোনো যুদ্ধ বিমান পাঠাবে না। গণমাধ্যম সিএনএনকে একজন উচ্চপদস্থ সামরিক কর্মকর্তা জানিয়েছেন, ইউক্রেনে যুদ্ধবিমান না পাঠানোর যে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে সেই সিদ্ধান্তে তারা এখনো বহাল আছেন।

যুক্তরাষ্ট্রের সামরিক কর্মকর্তারা আগেও জানিয়েছিলেন, তারা ইউক্রেনে যুদ্ধবিমান পাঠানোর বিরোধীতা করছেন কারণ যুদ্ধবিমান পাঠালে বিষয়টিকে পুতিন ভালোভাবে নেবেন না।