ইউক্রেন যুদ্ধে জড়াতে চাই না, সাফ জানিয়ে দিল এই দেশ

ইউক্রেনে রুশ আগ্রাসন দ্বিতীয় মাসে পা রেখেছে। ইউক্রেনের বিভিন্ন শহরে অব্যাহত রয়েছে রুশ হামলা। পালটা জবাব দিচ্ছে ইউক্রেনও। চলমান উত্তেজনা নিরসনে দুপক্ষের মধ্যে কয়েক দফা বৈঠকেও আসেনি ফলপ্রসু সমাধান। এরই মধ্যে এই যুদ্ধে জড়াতে চায় না বলে সাফ জানিয়ে দিয়েছে হাঙ্গেরি। বিবিসি শুক্রবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে।

হাঙ্গেরি সরকারের মুখপাত্র জোল্টান কোভাকস এক বিবৃতিতে জানান, হাঙ্গেরি এই যুদ্ধ থেকে দূরে থাকতে চায়। তাই ইউক্রেনে কোনো অস্ত্র দেওয়া হবে না।

এর আগে ইউক্রেনকে অস্ত্র দিয়ে সহায়তা এবং রাশিয়ার বিরুদ্ধে কঠোর নিষেধাজ্ঞার জন্য হাঙ্গেরির প্রতি আবেদন জানিয়েছিলেন ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কি। তবে হাঙ্গেরির প্রধানমন্ত্রী ভিক্টর অরবান সেই আবেদন নাকচ করে দিয়ে বলেছেন এটা হাঙ্গেরির স্বার্থের বিরুদ্ধে যাবে।

অরবান বলেন, হাঙ্গেরি কিয়েভে অস্ত্র পাঠালে ইউক্রেনের পশ্চিমাঞ্চলে জাতিগত-হাঙ্গেরিয়ান সংখ্যালঘুরা হুমকির সম্মুখীন হবেন।ইউরোপীয় ইউনিয়ন ও ন্যাটোর সদস্য হাঙ্গেরি কিয়েভকে সামরিক সাহায্য পাঠাতে বা তাদের ভূখণ্ড প্রবেশ করতে দিতে অস্বীকার করেছে। তবে পাঁচ লাখেরও বেশি ইউক্রেনীয় শরণার্থীকে আশ্রয় দিয়েছে হাঙ্গেরি।

সম্প্রতি বছরগুলোতে রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে জাতীয়তাবাদী নেতা অরবানের ঘনিষ্ঠতা বাড়ছে বলে ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে। তাই তিনি জেলেনস্কির আবেদন ফিরিয়ে দেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।