জাহাজ ফেরত দেওয়ার আহ্বান জাতিসংঘের, হুথি বিদ্রোহীদের না

জাহাজ ফেরত দেওয়ার আহ্বান জাতিসংঘের, হুথি বিদ্রোহীদের না

ইয়েমেনের হুথি বিদ্রোহীরা লোহিত সাগর থেকে সংযুক্ত আরব আমিরাতের পতাকাবাহী একটি জাহাজ আটক করে। জাতিসংঘ শুক্রবার জাহাজটি ফেরত দিতে তাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে। কিন্তু ইরান সমর্থিত সশস্ত্র এই বিদ্রোহীরা বলছে, তারা জাহাজ ফেরত দেবে না।

এএফপির খবরে বলা হয়েছে, চলতি মাসের শুরুতে (০৩ জানুয়ারি) লোহিত সাগরের হোদাইদা বন্দর থেকে রাওয়াবি নামে আরব আমিরাতের পতাকাবাহী জাহাজ আটক করে হুথি বিদ্রোহীরা।
১১ ক্রু সদস্যসহ জাহাজ আটকের পর একটি ভিডিও প্রকাশ করে তারা। ওই ভিডিওতে জাহাজটিতে সমরাস্ত্র সামগ্রী দেখা যায়। যদিও সংযুক্ত আরব আমিরাতের দাবি, জাহাজটিতে ঔষধ সামগ্রী ছিল।

সংযুক্ত আরব আমিরাত রাওয়াবি নামে জাহাজটিকে ‘বেসামরিক কার্গো জাহাজ’ বলে উল্লেখ করেছে। তারা জানিয়েছে, সৌদি কোম্পানি তাদের জাহাজটি লিজ নিয়েছিল। আন্তর্জাতিক পানি সীমানায় জাহাজটিতে হসপিটাল সামগ্রী পরিবহণ করা হচ্ছিল।

শুক্রবার জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদ অবিলম্বে জাহাজটি ছেড়ে দিতে হুথিদের প্রতি আহ্বান জানায়। বিবৃতিতে জাতিসংঘের শক্তিশালী এই পরিষদ আডেন উপসাগর, লোহিত সাগরে স্বাধীনভাবে জাহাজ চলাচলের ওপর গুরুত্বারোপ করে। জাতিসংঘের এই পরিষদ সকল পক্ষকে উত্তেজনা কমানোরও আহ্বান জানিয়েছে।

তবে জাতিসংঘ আন্তর্জাতিক আইন লঙ্ঘনকারী হত্যাকারীদের পক্ষ নিচ্ছে বলে অভিযোগ তুলেছেন হুথি নেতা আজি। এই হুথি নেতা বলেন, রাওয়াবি জাহাজ আমাদের জনগণের বিরুদ্ধে আগ্রাসনের কাজে ব্যবহৃত হচ্ছিল। জাহাজটি অবৈধভাবে ইয়েমেনের জল সীমানায় অবস্থান করছিল বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

তবে সংযুক্ত আরব আমিরাত জাহাজ আটককে ‘দস্যুবৃত্তি’ হিসেবে উল্লেখ করেছে।