মার্কিন সেনাদের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিল ইরাক

মার্কিন সেনাদের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নিল ইরাক

মধ্যপ্রাচ্যের যুদ্ধবিধ্বস্ত রাষ্ট্র ইরাকের পার্লামেন্টের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী সে দেশ থেকে যুক্তরাষ্ট্রের সকল সেনাকে অবশ্যই বিদায় নিতে হবে। এমনটাই দাবি করেছেন ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের শীর্ষস্থানীয় একজন সামরিক কমান্ডার মেজর জেনারেল হোসেইন সালামি।

তেহরানে সফররত ইরাকের প্রতিরক্ষামন্ত্রী লে. জেনারেল জুমা আনাদ সাদুনের সঙ্গে বৈঠক করেন ইরানের ইসলামি বিপ্লবী গার্ড বাহিনীর (আইআরজিসি) প্রধান কমান্ডার মেজর জেনারেল হোসেইন সালামি। মূলত সেই বৈঠকে তিনি এ কথা বলেন।

হোসেইন সালামি আরও বলেন, শুধু ইরাকের পার্লামেন্ট মার্কিন সেনাদের বের করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে আইন পাস করেছে তা নয়, ইরাকের আপামর জনগণের প্রাণের দাবি এটি।

চলতি বছরের ৩ জানুয়ারি ইরাকের রাজধানী বাগদাদের আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের কাছে মার্কিন সেনাদের ড্রোন হামলায় ইরানের কুদস ফোর্সের কমান্ডার লে. জেনারেল কাশেম সোলাইমানি ও ইরাকের হাশদ-আশ-শাবি বাহিনীর উপ-প্রধান আবু মাহদি আল-মুহান্দিস নিহত হন।

আরও পড়ুন : মার্কিন বাহিনীর ঘরে ফেরার সময় হয়েছে : পেন্টাগন

সেই ঘটনার দু’দিন পর ইরাকের পার্লামেন্ট সে দেশ থেকে সকল মার্কিন সেনা বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নিয়ে একটি বিল পাস করে।

জেনারেল সালামি বলেন, যারা জেনারেল সোলাইমানি ও মুহান্দিসকে হত্যা করেছে, আমরা তাদের বিরুদ্ধে প্রতিশোধ নেবই। এক্ষেত্রে আইনি প্রক্রিয়ার পাশাপাশি প্রতিশোধ গ্রহণের প্রক্রিয়া সমানভাবে চলবে।

আরও পড়ুন : সাইপ্রাসকে দুটি আলাদা রাষ্ট্র বানাতে চান এরদোগান

ইরাকের প্রতিরক্ষামন্ত্রী বলেন, স্পর্শকাতর সময়ে ইরান সব সময় ইরাকের পাশে দাঁড়িয়েছে। এ জন্য তিনি তেহরানের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

সূত্র : পার্সটুডে