পশ্চিমবঙ্গে মোদী মমতা উত্তেজনা চরমে !

পশ্চিমবঙ্গে মোদী মমতা উত্তেজনা চরমে !

বিধানসভা নির্বাচনের সময় যতই ঘনিয়ে আসছে, ভারতের পশ্চিমবঙ্গে ততই বাড়ছে রাজনৈতিক উত্তে’জনা। করোনা ঝুঁ’কি উপেক্ষা করে নানা ধরণের কর্মকাণ্ড চালাচ্ছে নেতা-কর্মীরা। রাজ্যের প্রধান বিরো’ধী বিজেপি’র দাবি, মমতার তৃণমূলকে হা’রিয়ে এবার ক্ষ’মতা দ’খল করবে মোদির দল।

এজন্য তৃণমূল থেকে নেতা-কর্মীদের গেরুয়া শিবিরে নাম লেখাতে ম’রিয়া বিজেপি। দল-বদল রাজনীতির একটা নিয়মিত বিষয়। তবে শীর্ষ নেতাদের অন্য দলে যাওয়ার মতো চাঞ্চল্যকর ঘ’টনা ভারতেই সবচেয়ে বেশি দেখা যায়।

কোনো নির্বাচন ঘনিয়ে এলে এ প্রব’ণতা বাড়ে বহুগুণে। তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের রাজ্যে বিধানসভা ভোট আসন্ন। তাই রাজ্যটিতে তুমুল আলোচনা শুরু হয়েছে দল-বদল করে কে কোন দলে যোগ দিচ্ছেন।

এবার সবচেয়ে আলোচনা হচ্ছে তৃণমূল নেতা শুভেন্দু অধিকারীকে নিয়ে। পশ্চিমবঙ্গের পরিবহনমন্ত্রী ও নন্দীগ্রাম জমি বাঁচাও আন্দো’লনের প্রধান এই নেতা ক’দিন ধ’রেই নিজের দলের বি’রু’দ্ধে সরব হয়েছেন। তৃণমূল ত্যা’গ করে তিনি বিজেপিতে যোগ দেবেন- এমন খবরে সরব পশ্চিমবঙ্গ। রাজনৈতিক বিশ্লেষক অর্কপ্রভ সরকার বলেন, ”শুভেন্দু অধিকারি যদি বিজেপিতে আসে ২০২১ সালের এ ক’ঠিন নির্বাচনী লড়া’ইয়ে বিজেপি এগিয়ে থাকবে।”

পশ্চিমবঙ্গ বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, ”আমরা তো দরজা বড় করে রেখেছি সবাইকে নেয়ার জন্য। কোনো রাজনীতিবিদ যদি রাজনীতি করতে চান তবে বিজেপি সুযোগ দেবে।” শুধু শুভেন্দু অধিকারী নন, তৃণমূলের বহু নেতাকর্মী মমতার হাত ছেড়ে মোদির হাত ধ’রবেন বলেও দাবি গেরুয়া শিবিরের।