ট্রাম্প-বাইডেনের পাল্টাপাল্টি হুমকি ;ভয়াবহ অবস্থার মধ্যে দুজনেই বিজয়ের দাবি!

ট্রাম্প-বাইডেনের পাল্টাপাল্টি হুমকি ;ভয়াবহ অবস্থার মধ্যে দুজনেই বিজয়ের দাবি!

ভোটগণনার শেষ না হওয়ার আগেই জেতার দাবি দু’পক্ষের। তবে এই দাবি-পাল্টা দাবি করতে গিয়ে ফেসবুকের ‘হুঁশিয়ারি’র মুখে পড়লেন আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং তার চ্যালেঞ্জার জো বাইডেন— দু’পক্ষই।

আমেরিকার প্রেসিডেন্ট পদে শেষমেশ কে বসবেন, তা নিয়ে জোরদার টক্কর চললেও গণনার মাঝে জয়ের দাবি করে বসেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। এমনকি ডেমোক্র্যাট চ্যালে’ঞ্জার যে ভোটে কার’চুরির চেষ্টা করছেন, সে অভিযোগও করেন। ভোটে হেরে গেলে সুপ্রিম কোর্টে যাওয়ারও হু’মকি দেন ট্রাম্প।

অন্য দিকে, ট্রাম্পের মতো জো বাইডেনেরও দাবি, তিনি জেতার পথেই রয়েছেন। তবে সোশ্যাল মিডিয়ায় এই দাবি করতে গিয়ে বি’পত্তি দেখা দিয়েছে। ফেসবুক কর্তৃপক্ষ ট্রাম্প-বাইডেন— দু’জনকেই মনে করিয়ে দিয়েছেন, এখনও প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ফলাফল ঘোষণা হয়নি। ভোটগণনা চলছে!

সময় পার হয়ে গেলেও মতদানের দাবি করে এ দিন টুইটারে ট্রাম্প লিখেছেন, ”আমরা বড় কিছুর মুখে দাঁড়িয়ে। কিন্তু ওঁরা নির্বাচন হা’তিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছেন। আমরা কখনই তা হতে দেব না। ভোটের সময় পার হয়ে গেলে মতদান করা যায় না।” এখানেই ক্ষান্ত হননি ট্রাম্প।

হোয়াইট হাউস থেকে রিপাবলিকান সমর্থকদের উদ্দেশে ভাষণে ট্রাম্পের মন্তব্য, ”আমরা সত্যিই নির্বাচনে জিতে গিয়েছি।” প্রতিপক্ষ বাইডেন যে আমেরিকার সাধারণ মানুষের সঙ্গে প্রতা’রণা করছেন, সে দাবিও করেন ট্রাম্প। সেই সঙ্গে ভোটগণনা নিয়ে মতভে’দ দেখা দিলে সুপ্রিম কোর্টে যাওয়ারও হু’মকি দিয়েছেন তিনি।

ট্রাম্পের ভাষণের আগে ডেলাওয়্যারে নিজের শহর উইলমিংটনে বক্ততা দেন বাইডেন। সেই জনসভায় তিনি বলেন, ”আমরা বিশ্বাস করি, এই নির্বাচন জেতার পথেই রয়েছি। নিজের উপর বিশ্বাস রাখুন, আমরাই জিতছি।” তবে ট্রাম্প বা বাইডেন, দু’জনকেই এই অতিরিক্ত আত্মবিশ্বাসের ‘খেসারত’ দিতে হয়েছে।

সোশ্যাল মিডিয়ায় দু’জনের অ্যাকাউন্টেই নোটিফিকেশন দিয়ে দিয়েছে ফেসবুক। সেই সঙ্গে একটি বিবৃতিতে ফেসবুক বলেছে, ”প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প জেতার দাবি করতে থাকায় আমরা ফেসবুক এবং ইনস্টাগ্রামে নোটিফিকেশন চালাতে শুরু করেছি যে এখনও ভোটগণনা চলছে। এবং বিজয়ী কে, সে ঘোষণা হয়নি।”