ইসলামের বড় শত্রু ইমরান খান : মার্কিন গবেষক রুবিন

ইসলামের বড় শত্রু ইমরান খান : মার্কিন গবেষক রুবিন

পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের জন্যই বিশ্বজুড়ে ইসলাম ধর্মের প্রতি অন্য ধর্মের মানুষের রাগ বাড়ছে বলে দাবি করলেন আমেরিকার একজন গবেষক। ফ্রান্সের ঘ’টনাটির পরে ইমরান মুসলিম বিশ্বের বিভিন্ন রাষ্ট্রপ্রধানের কাছে চিঠি লিখেছেন।

তার প্রেক্ষিতেই পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর বি’রু’দ্ধে তো’প দে’গেছেন আমেরিকান এন্টারপ্রাইজ ইনস্টিটিউটের গবেষক মাইকেল রুবিন। সম্প্রতি এই বিষয়ে প্রকাশিত একটি প্রতিবেদনে ওই মার্কিন গবেষক উল্লেখ করেছেন,

মুখে ইসলামের প্রতি বিদ্বে’ষ বৃদ্ধির কথা বললেও এই বিষয়ে ভ’ণ্ডা’মি করছেন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। বিশ্বের অন্য দেশে ইসলামধর্মাবলম্বী মানুষের উপর সামান্য আ’ক্র’মণ হলেই তিনি চিৎকার শুরু করে দেন।

ইসলামের প্রতি বিদ্বেষ ছড়ানো হচ্ছে বলে অভিযোগ তোলেন। কিন্তু, চিন যখন উইঘুর মুসলিমদের উপর অ’ত্যা’চার চালায় তখন অ’দ্ভু’তভাবে চু’প থাকেন তিনি। বিশ্বের বিভিন্ন মানবাধিকার সংগঠন শি জিনপিং প্রশা’সনের

বি’রু’দ্ধে তোপ দা’গলেও পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীকে এই বিষয়ে কোনও মন্তব্য করতে দেখা যায় না। উলটে বিভিন্ন বিষয়ে চিনকে সমর্থন করেন। ইসলাম ধর্মে বিশ্বাসী মানুষদের প্রতি সত্যি সহানুভূতি থাকলে উইঘুরদের উপর হওয়া অ’ত্যা’চারের বি’রু’দ্ধে কেন মুখ খুলছেন না তিনি।

তাই ফ্রান্সের ঘ’টনার পর মুসলিম দেশগুলির রাষ্ট্রনায়কদের উদ্দেশ্যে তিনি যে চিঠি লিখেছেন তা বি’দ্বে’ষ ছড়ানোরই লক্ষণ। ইমরান খানকে আ’ক্র’মণ করে মাইকেল রুবিন-এর আরও দাবি, সত্যিকারের নেতা হলে ইসলামিক স’ন্ত্রা’সবাদ মেটানোর বিষয়ে সচেষ্ট হতেন। কিন্তু, তা না করে তিনি ফ্রান্সের প্রেসিডেন্টের উপর দোষ চা’পিয়ে নিজেকে মুসলিম বিশ্বের নেতা হিসেবে প্রতিষ্ঠিত করতে চাইছেন।

তবে তার আগে ইমরান খানের উচিত আয়নায় নিজের মুখ দেখা। কারণ ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট যেখানে সব সমস্ত মানুষের বাক স্বাধীনতার পক্ষে সওয়াল করছেন। তখন পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী তার বি’রু’দ্ধে ইসলাম বিদ্বে’ষ ছড়ানো অ’ভিযো’গ তুলছেন। আদতে বিশ্বজুড়ে ইসলামের প্রতি বিদ্বে’ষ তৈরি হওয়া মূল কারণ হল ইমরান খানই। ইউরোপের বিভিন্ন দেশের রাষ্ট্রপ্রধানদের তুলনায় তার জন্যই বেশি ইসলাম বিদ্বে’ষের সৃষ্টি হয়েছে।