হঠাৎ কেন ইমরানের বিরুদ্ধে মাঠে নামলেন মরিয়ম!

হঠাৎ কেন ইমরানের বিরুদ্ধে মাঠে নামলেন মরিয়ম!

পাকিস্তানের সাবেক প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরিফের মেয়ে মরিয়ম নওয়াজ গণমাধ্যমে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে বলেছেন, গণতান্ত্রিক আন্দোলনের মাধ্যমে জানুয়ারির আগেই ইমরান খান সরকারকে ঘরে পাঠিয়ে দেয়া হবে।

তিনি ইমরানকে অযোগ্য ও অক্ষম প্রধানমন্ত্রী হিসেবে আখ্যায়িত করেন। আর জনগণই ইমরান খান সরকারের পতন ঘটাবে। আগামী ১৬ অক্টোবর ইমরান খানের বিরুদ্ধে প্রতিবাদের অংশ হিসেবে পাঞ্জাবের গুজরানওয়ালাতে এক সমাবেশের ডাক দিয়েছে পিএমএল-এন।

ইমরান খান বাঁধা দিয়ে এ সমাবেশ বন্ধ করতে পারবে না বলে জানিয়েছে দলটি। এদিকে নওয়াজ শরিফ, মরিয়ম নওয়াজসহ দলের বেশ কয়েকজন নেতার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহ মামলা দায়ের করেছে পাকিস্তানের পুলিশ।

আরও পড়ুন: শাহরুখের উপস্থিতিতে ঘনিষ্ঠতা, লজ্জিত অভিনেতাবলিউডের বাদশাহর ভক্তকূল কেবল সাধারণ মানুষের মধ্যেই ছড়িয়ে নেই, ছড়িয়ে তারকাদের মধ্যেই। এক তারকা আরো এক তারকাকে দেখে ‘স্টারস্ট্রাক’ হয়ে যাচ্ছে, তা অত্যন্ত দুর্লভ একটি অনুভূতি।

এ অনুভূতি প্রাপ্য হয়েছিল আয়ুষ্মান খুরানা এবং তাহিরা কাশ্যপের। যে সময় আয়ুষ্মান লাইট ক্যামেরা অ্যাকশনের দুনিয়া থেকে বহু দূরে, জনপ্রিয়তার ধারে কাছেও ছিলেন না। সেই সময় থেকেই শাহরুখের অন্ধ ভক্ত ছিলেন তিনি। তেমনই অন্ধ ভক্ত ছিলেন তাহিরা কাশ্যপও।

স্বামী-স্ত্রী মিলেই শাহরুখের প্রেমে একেবারে হাবুডুবু খেতেন। বাদশাহর ছবি দেখা মানেই ব্যক্তিগত জীবনেও প্রেমের আনাগোনা শুরু। তবে আয়ুষ্মান খুরানা এবং তাহিরার মাথায় চেপে বসেছিল ঘনিষ্ঠ হওয়ার নেশা। তাও আবার শাহরুখের বর্তমানে।

স্বশরীরে শাহরুখের উপস্থিতি নয়, তবে পর্দায় তাকে দেখেই ঘনিষ্ঠতায় মজেছিলেন তারকা দম্পতি। যথেষ্ট বয়স কম তখন তাদের। শাহরুখের ছবি দেখতে যেতেন ফাঁকা থিয়েটারে। সেখানেই ঘনিষ্ঠতায় মজতেন তারা।

তাহিরা নিজের বই ‘ট্যুয়েলভ অ্যামেন্ডমেন্টস অফ বিং আ উম্যান’তে এ কথা জানিয়েছেন। বইটি ইতিমধ্যে পড়েও ফেলেছেন কিং খান। প্রতিক্রিয়া স্বরূপ তাহিরা লিখেছেন, লজ্জিতবোধ করব না আনন্দিত হবো বুঝতে পারছি না। এখন বুঝতে পারছি, তোমরা আমার সঙ্গে দেখা হলেই কেন এমন অদ্ভুতভাবে হাসতে থাকো।