তুমুল সং’ঘর্ষের মধ্যে ধ্বং’স করা হলো যুদ্ধ বিমান !

তুমুল সং’ঘর্ষের মধ্যে ধ্বং’স করা হলো যুদ্ধ বিমান !

আর্মেনিয়ার দুটি যু’দ্ধবিমান বৃহস্পতিবার ধ্বংস করেছে আজারবাইজান। আজারবাইজানের প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় এ তথ্য জানিয়েছে। এক বিবৃতিতে তারা জানিয়েছে, আর্মেনিয়ার যু’দ্ধবিমানগুলো গোবাদলির দিকে আজারবাইজানের অবস্থানের উপর দিয়ে উড়ছিল।

মন্ত্রণালয়টি আরো জানায়, সু-২৫ যু’দ্ধবিমানগুলোকে বৃহস্পতিবার বিকেলে গু’লি করে ধ্বংস করা হয়। গত ২৭ সেপ্টেম্বর যুদ্ধ শুরু হওয়ার পর থেকে আর্মেনিয়া বারবার আজারবাইজানের সাধারণ নাগরিক ও নিরাপত্তা বাহিনীগুলোকে আ’ক্রম’ণ করে যাচ্ছে।

এমনকি ১০ অক্টোবরের পর থেকে তিনটি মানবিক যু’দ্ধবিরতিও তারা লঙ্ঘন করেছে। আন্তর্জাতিকভাবে আজারবাইজানের ভূমি হিসেবে স্বীকৃত নাগরনো-কারবাখে সর্বশেষ যু’দ্ধবিরতি কার্যকর হয়েছে গত শনিবার।

সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নের অংশ দুই প্রতিবেশীর মধ্যে ১৯৯১ সালে বিরোধের সৃষ্টি হয়, যখন আর্মেনিয়ান সেনাবাহিনী আপার কারাবাখ দখল করে নেয়। আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সংগঠনের মতো জাতিসঙ্ঘ নিরাপত্তা কাউন্সিলের চারটি রেজুলিউশনে এবং জাতিসঙ্ঘের দুটি সাধারণ অধিবেশনে দখলকৃত অঞ্চল থেকে আর্মেনিয় বাহিনী প্রত্যাহারের দাবি করা হয়েছে।

নাগোরনো-কারাবাখ ও সাতটি সংলগ্ন অঞ্চলসহ আজারবাইজানের প্রায় ২০ শতাংশ অঞ্চল প্রায় তিন দশক ধরে দখল করে আছে আর্মেনিয়া। অঞ্চলটি থেকে আর্মেনিয়ার দখলদার বাহিনীকে প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছে তুরস্ক এবং এ ব্যাপারে বাকুকে সমর্থন জানিয়েছে দেশটি।