পার্লারের আড়ালে নায়িকা তানিনের গোপন অন্য ব্যবসা!

পার্লারের আড়ালে নায়িকা তানিনের গোপন অন্য ব্যবসা!

দ্বিতীয় সারির নায়িকা তানিন সুবহার বেশকিছু অন্তরঙ্গ ছবি ফাঁ’স হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। বিবাহিত ও নিজের ১২ বছর বয়সী মেয়ে রয়েছে- বিষয়টি গোপন রেখে এফডিসিতে চলতেন তানিন সুবাহ। নিজের ক্যারিয়ার বাঁ’চাতে নিজের মেয়েকে আপু ডাকার জন্যও চর্চা করিয়েছেন বলে বিভিন্ন মাধ্যম থেকে জানা যায়। সেই অনুযায়ী, আপন মেয়ে মাকে মানুষের সামনে আপু বলে ডাকে।

বিষয়টি নিয়ে গত কয়েকদিন থেকেই এফডিসি এলাকায় জোর আলোচনা। তানিন সুবহা সম্পর্কে পাওয়া যাচ্ছে চমকপ্রদ তথ্য। বিভিন্ন অনুষ্ঠানে নিজের মেয়েকে নিয়ে আসেন তানিন সুবহা। এমনকি মেয়ের জন্মদিনেও সবাইকে নিয়ে কেক কাটেন। তবে মেয়ে পরিচয় নয়, বোন পরিচয় দিয়েই, এসব করছেন তিনি। তার মেয়ের নাম তৃষিতা। বয়স ১২ বছর। এটি তানিনের প্রথম স্বামীর সন্তান।

সম্প্রতি কয়েকজন যুবকের সঙ্গে তানিন সুবহার ছবি প্রকাশ পায়। এদেরই একজন রাব্বি। জানা গেছে, তানিন সুবহার প্রেমিক ছিলেন রাব্বি। রাব্বি একটাই কথা বললেন, ‘এসব এখন অতীত।’ তানিন সুবহার হাতে কোনো ছবি না থকলেও দামি গাড়ি হাকিয়ে বেড়ান এবং নিজের মা, বাবা, ভাই, বোনসহ পুরো সংসারটি তিনিই পরিচালনা করেন।

একটি পার্লার রয়েছে খিলগাঁও এলাকায়। সেই পার্লার ব্যবসার আড়ালেও শোনা যায় নানা গুঞ্জন। অনেকেই শিল্পী সমিতির কাছে বিষয়টি নিয়ে অনেকে অ’ভিযোগও করেন। জানা গেছে, স্বামী পনিরকে ২০০৮ সালে ডিভোর্স দেন তানিন। সে ঘরে তৃষিতা নামের ওই কন্যা সন্তান জন্ম নেয়। এর আগেও এই নায়িকার পার্লার ব্যবসার আড়ালে বিভিন্ন অ’নৈতিক কর্মকাণ্ডের খবরও আসে।

যদিও সে সময় তিনি সেসব অ’স্বীকার করেছিলেন। তবে ওবায়দুর নামের এক ব্যবসায়ী তানিনকে গাড়ি উপহার দিয়েছেন বলে নিশ্চিত হওয়া গেছে। এছাড়া ২০১৫ সালে নিজ বিউটি পার্লারের কর্মী টুনিকে অ’পহরণ এবং অ’নৈতিক সম্পর্কে জ’ড়ানোর অ’ভিযোগে গ্রে’প্তার হয়েছিলেন তানিন সুবহা।

অ’পহরণ ছাড়াও তার বি’রুদ্ধে নানা অ’নৈতিক কর্মকাণ্ডের অ’ভিযোগ রয়েছে। মা’মলাটি এখনও বিচারাধীন। গত ২৮শে অক্টোবর টুনি নামের এক বিউটিশিয়ানের পরিবারের অ’ভিযোগের ভিত্তিতে তানিনকে গ্রে’প্তার করে রাজধানীর সবুজবাগ থা’না পু’লিশ।

তার বি’রুদ্ধে অনেক অ’ভিযোগের প্রেক্ষিতে শিল্পী সমিতি থেকে তার বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার বিষয়ে জানান চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান। জায়েদ খান বলেন, আমরা বিষয়টি প্রাথমিকভাবে জেনেছি। একজন অভিনয় শিল্পীর জন্য অন্য কোনও শিল্পীর স’ম্মান ন’ষ্ট হোক তা আমরা চাই না। তাই আমরা বিষয়টি নিয়ে দ্রুত সমাধান আনার চে’ষ্টা করব।

এ প্রসঙ্গে তানিন সুবহার সাথে কথা বলতে চাইলে তার দুটো ফোন নম্বরই ব’ন্ধ পাওয়া যায়। তবে একটি গণমাধ্যমকে তানিন সুবহা বলেন, ‘এ ছবিগুলো তিন-চার বছর আগের। কিন্তু একটি গ্রুপ কিছুদিন ধরেই আমাকে ছবিগুলো দিয়ে ব্ল্যাকমেইল করে আসছে। কিন্তু আমি আর তাদের এসব বিষয় সহ্য করতে পারিনি। আর এ কারণেই তারা ছবিগুলো প্রকাশ করেছে।

কারো ব্যক্তিগত ছবি এভাবে প্রকাশ একটি অ’পরাধ। আমি আ’ইনের আশ্রয় নেব।’ ‘অবাস্তব ভালোবাসা’ চলচ্চিত্রের মাধ্যমে বড়পর্দায় অভিষেক ঘটে তানিন সুবহার। ছোটপর্দায় অভিষেক হয় আজাদ কালামের পরিচালনায় ‘যমজ’ নাটকে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে। তার পর থেকেই দ্বিতীয় সারির নায়িকা হিসেবে কাজ করছেন। তিনি বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সদস্য।