শাহেদের রিজেন্টকাণ্ডে পার পাচ্ছেন না স্বাস্থ্যমন্ত্রীও ।

শাহেদের রিজেন্টকাণ্ডে পার পাচ্ছেন না স্বাস্থ্যমন্ত্রীও ।

রিজেন্টকা’ণ্ডের নায়ক শাহেদের প্র’তারণার তালিকা ক্র’মেই দীর্ঘ হচ্ছে। ব্যাংকে ঋণ জা’লিয়া’তিতে সিদ্ধহ’স্ত তিনি। ছয়টি ব্যাংকে তার অর্থ আ’ত্মসাতের অ’ভিযোগ তদ’ন্ত করছে দুদক।

এর মধ্যে আজ সোমবার (১৭ আগস্ট) ফারমার্স ব্যাংকের ঋণ জা’লিয়া’তির ঘ’টনায় শাহেদকে প্রথমদিনের জিজ্ঞাসাবাদ শেষে দুদক সচিব বলছেন, তথ্য প্রমাণের ভিত্তিতে প্রয়োজনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হবে স্বাস্থ্যমন্ত্রীকেও। কখনো হাসপাতালের নামে কখনো রিজেন্ট গ্রুপের নামে ব্যাংক ঋণ নিয়ে ফেরত দেননি শাহেদ।

সুদ-আসলে বকেয়া ঠেকেছে ২ কোটি ৭১ লাখ টাকায়। ফারমার্স ব্যাংকের ঋণ কে’লেঙ্কা’রির মা’মলায় সা’তদিনের রিমা’ন্ডের প্রথমদিনে কেরানীগঞ্জ কা’রাগার থেকে শাহেদকে আনা হয় দু’দক কার্যালয়ে। টানা জিজ্ঞাসাবাদ শেষে দু’দক সচিব জানান, শুধু ঋণ কে’লেঙ্কা’রি নয়,

রিজেন্টের সঙ্গে কি করে চুক্তি সই হলো তা জানতে জিজ্ঞাসাবাদ করা হতে পারে স্বাস্থ্যমন্ত্রীসহ যে কাউকে। শাহেদের বি’রুদ্ধে এনআরবি ব্যাংকের ঋণ জা’লিয়া’তির ঘ’টনায় এরই মধ্যে মা’মলা করেছে দুদক। এছাড়া তথ্য উপাত্ত চাওয়া হয়েছে আরো চার ব্যাংকের কাছে।