রাজশাহীতে ড্রেনে ভাসছে হাজার হাজার টাকা, কুড়িয়ে নেওয়ার হিড়িক!

রাজশাহীতে ড্রেনে ভাসছে হাজার হাজার টাকা, কুড়িয়ে নেওয়ার হিড়িক!

আসলাম নামের একজন জানান, তিনি ১ হাজার ও ৫০০ টাকার নোট পেয়েছেন । রাজশাহীর ড্রেন দিয়ে ভেসে যাচ্ছে হাজার হাজার টাকা। উল্লাসের সঙ্গে সেই টাকা কুড়িয়ে নিচ্ছে অনেকেই। শনিবার (২২ আগস্ট) দুপুরে নগরীর রেলওয়ের অফিসার্স রেস্ট হাউসের সামনের ড্রেনে টাকা ভেসে যাওয়ার এ ঘটনা ঘটে।

জানা গেছে, টাকাগুলো রাজশাহী সড়ক পরিবহন গ্রুপের। সেগুলো পুরোনো কাগজপত্রের ভেতরে ছিল। দুপুরে কাগজপত্রগুলো ফেলে দেওয়া হয়। সঙ্গে ভেসে যায় টাকাগুলোও। পরে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বিষয়টি ছড়িয়ে পড়লে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

রাজশাহী সড়ক পরিবহন গ্রুপের সাধারণ সম্পাদক মতিউল হক টিটো জানান, “আমরা খুবই বিব্রতকর অবস্থায় পড়েছি। ভাবতেই পারিনি পুরোনো কাগজের ভেতর টাকা থাকতে পারে।

কাগজগুলো ২০১০ সালের আগের। পঁচে গেছে। পোড়ানোর উপায় নেই। তাই ড্রেনে ফেলে দেওয়া হয়। পরে ড্রেনে টাকা পাওয়ার খবর শুনে আমরাও সেখানে যাই। তারপর ঘটনা দেখি।”

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ড্রেনে ১ হাজার, ৫০০, ১০০, ২০, ১০ এবং ৫ টাকার নোট পাওয়া গেছে। টাকা ভাসতে দেখে প্রথমে একজন এবং পরে অনেক মানুষ নেমে পড়ে ড্রেনে।

টুলু নামের এক ব্যক্তি কুড়িয়ে পাওয়া টাকাগুলো রেখেছিলেন পকেটেই। তিনি জানান, টাকাগুলো অফিসার্স মেসের পশ্চিম থেকে পূর্ব দিকে ভেসে যাচ্ছিল। ড্রেনে ভাসতে দেখে তিনি নেমে পড়েন।

আসলাম নামের আরেকজন জানান, তিনি ১ হাজার ও ৫০০ টাকার নোট পেয়েছেন। এছাড়া নগরীর উপশহর এলাকার রিকশাচালক শাকিল জানান, তিনি একটি ৫০০ টাকার নোট ও একটি ১০০ টাকার নোট পেয়েছেন।

নগরীর বোয়ালিয়া মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নিবারণ চন্দ্র বর্মন জানান, “ঘটনাস্থল পুলিশ পরিদর্শন করেছে। তবে রাজশাহী সড়ক পরিবহন গ্রুপের পক্ষ থেকে কোনো অভিযোগ নেই। তাই সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে। পরে তা তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।”