বন্ধু হয়ে এভাবে বাংলাদেশকে ফাঁকি দিলো ভারত !

বন্ধু হয়ে এভাবে বাংলাদেশকে ফাঁকি দিলো ভারত !

ভারতকে বলা হয়ে থাকে বাংলাদেশের বন্ধু রাষ্ট্র। কিন্তু প্রতিবেশী এই বন্ধু রাষ্ট্রকেই বাংলাদেশকে কথা দিয়ে কথা রাখেনি বরং দিয়েছে বড় ধরনের ফাঁকি।ভারত-বাংলাদেশের মধ্যে হওয়া বিগত তিনবছরের ঋণচুক্তি থেকে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

জানা গেছে, ২০১০ সালে প্রথমবারের মতো বাংলাদেশের অবকাঠামো উন্নয়নে সাতটি প্রকল্প বাস্তবায়নের জন্য ভারতের সাথে ৮৬ কোটি ডলারের ঋণচুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। কিন্তু ঋণচুক্তির পর ১০ বছর পার হলেও ৮৬ কোটি ডলারের মধ্যে সুদের বিনিময়ে ৬০ কোটি ডলার সহায়তা দিয়েছে ভারত।

পরবর্তীতে এই ঋণ বুঝিয়ে দেয়ার আগেই ২০১৫ সালে দ্বিতীয় দফায় ভারত-বাংলাদেশের মাঝে ২০০ কোটি ডলারের ঋণচুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। এই চুক্তি দিয়ে ১৪ প্রকল্প বাস্তবায়ন করার কথা ছিলো কিন্তু পাঁচ বছর পার হয়ে গেলেও ২০০ কোটি ডলারের মধ্যে মাত্র ৮.৪ কোটি ডলার দিয়েছে ভারত। অর্থাৎ ভারত এখনও ১৯১.৬ কোটি ডলার দিতে পারেনি।

 

আর এর মাঝেই, ২০১৭ সালে তৃতীয় দফায় আবারো ভারতের সাথে বাংলাদেশের ৪৫০ কোটি ডলারের ঋণচুক্তি স্বাক্ষরিত হয়। এই অর্থ ১৭টি প্রকল্পে ব্যয় করা হবে।

কিন্তু চুক্তির সাড়ে ৩ বছর পেরিয়ে গেলেও কোনো প্রকল্পের কাজ শুরু হয়নি। এই চুক্তির অধীনে এখনও ১ টাকাও দেয়নি ভারত অর্থাৎ তৃতীয়বারে পুরোটাই ফাঁকি দিয়েছে ভারত।