নতুন প্রেমে মিথিলা!

নতুন প্রেমে মিথিলা!

নতুন প্রেমে অভিনেত্রী রাফিয়াত রশিদ মিথিলা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কয়েকদিন ধরে তিনি জীবনানন্দ দাশের কবিতা উদ্ধৃত করে যাচ্ছেন। বলা যায়, তিনি নতুন করে ‘রূপসী বাংলা’র কবির প্রেমে পড়েছেন। সোমবার সকাল ৭টা ৮মিনিটে শাড়ি পরা একটি ছবি আপলোড দিয়ে ক্যাপশন দেন জীবানন্দের ‘বনলতা সেন’ কবিতার দুটি চরণ।

তা হলো- ‘‘সব পাখি ঘরে আসে— সব নদী— ফুরায় এ-জীবনের সব লেনদেন//থাকে শুধু অন্ধকার, মুখোমুখি বসিবার বনলতা সেন।’’ কবিতাপ্রেমী খুব কম বাঙালিই আছেন—যার পছন্দের তালিকায় জীবনানন্দ দাশের কবিতা নেই। অভিনেত্রী মিথিলার পছন্দের তালিকায়ও জীবনান্দনের নাম প্রথম দিকেই রয়েছে। তাইতো বার-বার তিনি নিজের ছবির ক্যাপশনে এই কবিকে স্মরণ করেন!

ছবিটি ফেসবুকে শেয়ার করলে সেটি ভাইরাল হয়ে যায়। আসতে থাকে অজস্র মন্তব্য, যার বেশির ভাগই কুরুচিপূর্ণ এবং আপত্তিকর ইঙ্গিতপূর্ণ। ফেসবুকে নিজের ছবিতে কুরুচিপূর্ণ মন্তব্যকে ‘সাইবার বুলিং’ বলে মনে করেন মিথিলা। তবে এটা সবার জানা যে, সাইবার বুলিং-এর পরোয়া করেন না মিথিলা। নিজেকে ইচ্ছেমাফিক প্রকাশে তার কোনো কুণ্ঠা নেই।

গত বছর ৬ ডিসেম্বর কলকাতার নির্মাতা সৃজিত মুখার্জিকে বিয়ে করেন মিথিলা। বিয়ের পর মধুচন্দ্রিমা সেরে মেয়ে আইরাকে নিয়ে ঢাকায় ছিলেন মিথিলা। আর সৃজিত ছিলেন কলকাতায়। করোনার কারণে দু’জন দুই দেশে থাকতে হয়েছে। কিন্তু এভাবে আর কতদিন? তাই প্রায় সাড়ে পাঁচমাস পর সৃজিতের ভালোবাসার টানে মিথিলা ১৫ আগস্ট ছুটে যান পশ্চিমবঙ্গে।

সৃজিতে বাড়িতে গিয়ে মিথিলা অনেকটা অবাকই হয়েছেন বলে জানান তিনি। মিথিলা বলেন, কয়েকমাস আগেও বাড়ির নেমপ্লেটে লেখা ছিল সৃজিত মুখার্জি। আর এখন সেই বাড়ির নেমপ্লেটে লেখা- সৃজিত মুখার্জি, রাফিয়াত রশিদ, আইরা তেহরীম খানের নাম। এটা তার জন্য অনেক বড় সারপ্রাইজ বলে উল্লেখ করেন মিথিলা।