মৃত্যুপুরী ফ্রান্সকে ছাড়িয়ে গেল বাংলাদেশ

মৃত্যুপুরী ফ্রান্সকে ছাড়িয়ে গেল বাংলাদেশ

প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসের আক্রমন ও মৃত্যুর হার দিন দিন বাড়ছেই। প্রয়োজনের তুলনায় সীমিত পরীক্ষার পরও প্রতিদিনই গড়ে ৩ হাজারের বেশি করোনা শনাক্ত হচ্ছে। বাংলাদেশে নতুন করে আরও ৩ হাজার ২৭ জন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন।

এর ফলে বাংলাদেশ আক্রান্তের ১২১তম দিনে এই ভাইরাসের থাবায় মৃত্যুপূরীরে রূপ নেয়া ইউরোপের দেশ ফ্রান্সকে ছাড়িয়ে গেল। একই সঙ্গে বাংলাদেশ আক্রান্ত দেশগুলোর তালিকায় শীর্ষ ১৭তম স্থানে উঠে গেছে।

আক্রান্তের শীর্ষ স্থানে আছে আরেক মৃত্যুপুরীর দেশ যুক্তরাষ্ট্র। মঙ্গলবার (৭ জুলাই) এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ৬৮ হাজার ৩৩৫ জন। আর ৩ হাজার ২৭ জন আক্রান্তের ফলে বাংলাদেশে আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ১ লাখ ৬৮ হাজার ৬৫ জন।

ইতোমধ্যেই বাংলাদেশ এই ভাইরাসের উৎপত্তিস্থল চীনকেও ছাড়িয়ে গেছে। চীনে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৮৩ হাজার মানুষ। চীনের উহানে গত জানুয়ারির প্রথম দিকে শনাক্ত হয় করোনা ভাইরাস। এরপর দেশটিতে মহামারি আকারে ছড়িয়ে পড়ে। তবে অল্প কিছুদিনের মধ্যেই অবস্থার নিয়ন্ত্রণ আনতে সক্ষম হয় দেশটি।

আক্রান্তের তালিকায় শীর্ষ ২০ দেশ হল:

১. যুক্তরাষ্ট্র ২. ব্রাজিল ৩. ভারত ৪. রাশিয়া ৫. পেরু ৬. স্পেন ৭. চিলি ৮. যুক্তরাজ্য ৯. মেক্সিকো
১০. ইরান ১১. ইতালি ১২. পাকিস্তান ১৩. সৌদি আরব ১৪. তুরস্ক ১৫. দক্ষিণ আফ্রিকা ১৬. জার্মানি ১৭. বাংলাদেশ
১৮. ফ্রান্স ১৯. কলোম্বিয়া ২০. কানাডা

আর মৃত্যুর সংখ্যা বাংলাদেশ ২৭তম। তবে টেষ্টের দিকে দিয়ে বাংলাদেশ পিছিয়েছে, আগে ৩০ এর মধ্যে থাকলেও বর্তমান অবস্থান ৩৩তম। আক্রান্তের শীর্ষের ২০টি দেশের মধ্যে কেবলমাত্র মেক্সিকো বাংলাদেশের চেয়ে কম টেস্ট করা হয়েছে।