নামাজ পড়া নিয়ে নতুন নির্দেশনা!

রেডজোন হিসেবে ঘোষিত এলাকাসমূহের জনগণকে ঘরে ইবাদত বা উপাসনা করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। শনিবার ( ১৩ জুন) ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় সংবাদ বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে বিষয়টি জানিয়েছে।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, বর্তমান বাংলাদেশে করো’না সং’ক্রম’ণ প’রিস্থি’তি দ্রুত অবনতিশীল হচ্ছে এবং সং’ক্রম’ণ ও প্রাণহানির সংখ্যা ক্রমশ বৃদ্ধি পাচ্ছে।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তর কর্তৃক করো’না ভাই’রাস (কো’ভিড-১৯) রোগের চলমান ঝুঁ’কি বিবেচনায় দেশের যে কোন ছোট বা বড় এলাকাকে লাল, হলুদ বা সবুজ জোন হিসেবে চিহ্নিতকরণ কার্যক্রম গ্রহণ করা হয়েছে।

ইতিমধ্যে কিছু এলাকায় প্রাথমিকভাবে পরীক্ষামূলক জোনিং সিস্টেম বাস্তবায়ন কার্যক্রম শুরু করা হয়েছে।গত ১২ জুন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় লালজোন হিসেবে চিহ্নিত এলাকাগুলোতে মসজিদ,

মন্দির, গীর্জা ও প্যাগোডাসহ অন্যান্য উপাসনালয়ে সর্বসাধারণের আগমন বন্ধ রাখার পরামর্শ প্রদান করা হয়েছে।উল্লেখ্য প্রা’ণঘা’তী করো’না সং’ক্রম’ণ ভ’য়াব’হ ম’হামা’রী আকার ধারণ করায় ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় কর্তৃক গত ৬ এপ্রিল বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে দেশের সাধারণ জনসাধারণের মসজিদ,

মন্দির, গির্জা ও প্যাগোডাসহ অন্যান্য উপাসনালয়ে সমবেত না হয়ে নিজ নিজ বাসস্থানে ইবাদত বা উপাসনা করার নির্দেশ প্রদান করা হয়। পরবর্তীতে ৬ বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে উক্ত নিষেধাজ্ঞা শিথিল করে স্বাস্থ্য বিধি অনুসরণ করে মসজিদসমূহে সুস্থ মুসল্লিদের উপস্থিতিতে জামায়াতে নামাযের অনুমতি প্রদান করা হয়।