বিপর্যস্ত ভারত করোনায় একের পর এক রে’কর্ড ভেঙেই যাচ্ছে !

দেশে ফের সর্বোচ্চ হারে করোনা সংক্রমণ। গত ২৪ ঘন্টায় আবারও লাফিয়ে বাড়ল আক্রান্তের সংখ্যা। নতুন করে আক্রান্ত হলেন ১৬ হাজার ৯৩৩ জন। মৃত্যু হয়েছে আরও ৪১৮ জনের।

নতুন করে মৃত্যু ও সংক্রমণের জেরে দেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৪ লক্ষ ৭৩ হাজার ১০৫ এ। মৃত্যু হয়েছে মোট ১৪,৮৯৪ জনের। দেশে এই মুহূর্তে অ্যাক্টিভ কেস রয়েছে ১ লক্ষ ৮৬ হাজারের বেশি।

সুস্থ হয়ে উঠেছেন ২ লক্ষ ৭১ হাজার ৬৯৭ জন।অন্যদিকে বুধবার মাইলস্টোন গড়েছে ভারত। নভেল করোনা ভাইরাসের জন্য একদিনে ২ লাখ স্যাম্পেল টেস্ট করে বড় অর্জন করেছে দেশ, এমনটাই জানিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক।

বিবৃতিতে জানান গিয়েছে, ‘সরকারি ল্যাবরেটরিতে এখনও অবধি ১,৭১,৫৮৭টি এবং বেসরকারি ল্যাবরেটরিতে ৪৩,৬০৮টি স্যাম্পেল পরীক্ষা করা হয়েছে। এর সঙ্গে একদিনে স্যাম্পেল টেস্টে নজির গড়েছে বেসরকারি ল্যাবরেটরি’। এ খবর দিয়েছে কলকাতা২৪।

শিথিল লকডাউন। রাস্তায় ক্রমশ বাড়ছে মানুষের আনাগোনা। আর এই অবস্থায় গোটা দেশজুড়ে সংক্রমণের সংখ্যা হুহু করে বেড়েই চলেছে। কিছুতেই লাগাম টানা যাচ্ছে না এই মারণ ব্যাধির দাপট থেকে।

তবে এতকিছুর মাঝে একটু হলেও মিলেছে স্বস্তির খবর। করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসায় এবার সরাসরি ব্যবহার তথা প্রয়োগ করা হবে রিমদেসিভির ওষুধ।

কিছুদিন আগেই করোনা আক্রান্তদের চিকিৎসায় এই ওষুধ ব্যবহারের কথা ঘোষণা করেছিলো মহারাষ্ট্র সরকার। এবার মহারাষ্ট্র সরকারের দেখানো পথেই হাঁটতে চলেছে কেন্দ্র।