শনিবারও আমাদের মধ্যে মেলামেশা হয়েছে; ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে তরুণী!

শনিবারও আমাদের মধ্যে মেলামেশা হয়েছে; ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে তরুণী!

নিজের বিয়ের কথা গোপন রেখে গত দুই বছর ধরে কলেজ পড়ুয়া (এইচএসসি) ২য় বর্ষের শিক্ষার্থী সাথে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে লাগাতার ধ’র্ষণের অ’ভিযোগ ওঠেছে ছাত্রলীগ নেতার বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় রোববার (৩ মে) বিকাল ৬টার দিকে ওই শিক্ষার্থী যুবতী নগরীর শিরোইল কলোনী এলাকায় প্রেমিক ছাত্রলীগ নেতা ইফতেখার আহম্মেদ সারাফাতের বাড়ির সামনে অবস্থান করে কান্নাকাটি করতে দেখা যায়।

এ সময় সে প্রকাশ্যে বলে বিয়ে না করলে আত্মহ’ত্যা করবো। প্রতারক প্রেমিক সারাফাত নগরীর চন্দ্রিমা থানাধিন শিরোইল কলোনী (৪নং গলি) এলাকার মৃত: ইদ্রিশ আলীর ছেলে ও রাজশাহী মহানগর ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক।

শিক্ষার্থী যুবতী জানায়, গত দুই বছর ধরে সারাফাতের সাথে তার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এরই মধ্যে তাদের প্রেমের সম্পর্ক গড়ায় শারীরিক সম্পর্কে। গতকাল শনিবারও তাদের মধ্যে মেলামেশা হয়েছে। কিন্তু সারাফাত যে বিবাহিত সে কথা গোপন রেখেই তার সাথে দির্ঘদিন দিন ধরে শারীরিক সম্পর্ক চালিয়ে আসছিলো বলে শিক্ষার্থী যুবতীর অ’ভিযোগ।

আজ রবিবার ওই যুবতী জানতে পারেন সারাফাত তাকে ধোকা দিয়ে শারীরিক সম্পর্ক গড়ে তুলেছে। সে গত চার বছর পূর্বে বিয়ে করেছে। বাড়িতে তার স্ত্রী রয়েছে। কিন্তু আমাকে সে কথা কখনই বলেনি। এ ঘটনা জানতে পেরে যুবতীর মাথায় আকাশ ভেঙ্গে পড়ে। পাগলের মতো দৌড়ে যায় সারাফাতের বাড়ির সামনে। শুরু করে কান্নাকাটি। বলে বিয়ে না করলে আত্মহ’ত্যা করবো।

এ সময় সেখানে ভিড় করে স্থানীয়রা। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে শিক্ষার্থী যুবতী ও সারাফাতকে থানায় নিয়ে আসে। শিক্ষার্থী যুবতীর বাবা মিনারুল ইসলাম জানায়, আমি ঝামিলা চাই না। তবে আমার মেয়ে যে সিদ্ধান্ত নিবে সেটাই চূড়ান্ত।

জানতে চাইলে চন্দ্রিমা থানার অফিসার ইনচার্জ সিরাজুম মনির জানায়, শিক্ষার্থীতে ডেকে যে এলাকায় মেলামেশা করেছে সেটা বোয়ালিয়া থানা এলাকা। তাই মামলা করলে বোয়ালিয়া থানায় যেতে হবে। ওসি বোয়ালিয়াকে বিষয়টি অবগত করা হয়েছে বলেও জানায় তিনি। এ রিপোর্ট লিখা পর্যন্ত শিক্ষার্থীর মা-বাবা থানায় অবস্থান করছিলো। আর ছাত্রলীগ নেতা সারাফাত ছিলো থানা হাজতে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে মহানগর ছাত্রলীগ সভাপতি রকি কুমার ঘোষ জানান, সহ-সম্পাদক ইফতেখার আহম্মেদ সারাফাতের প্রেমের সম্পর্কের বিষয়ে আমার জানা নাই। জেনে পরে জানাবো।