দশম শ্রেণির ছাত্রের সঙ্গে নবম শ্রেণির ছাত্রীর প্রেম, অতঃপর

চলমান করোনাভাইরাসের প্রার্দুভাবের মধ্যেও টাঙ্গাইলের সখীপুর উপজেলায় পার্কি মনির উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির ছাত্রী নাজমা আক্তার লিজার সঙ্গে একই প্রতিষ্ঠানের দশম শ্রেণির ছাত্র মানিক মিয়ার (১৬) বিয়ে সম্পন্ন হয়েছে।

সম্প্রতি উপজেলার কাকড়জান ইউনিয়নের ৪ নম্বর ওয়ার্ড চকপাড়া গ্রামে এ বাল্যবিয়ে সম্পন্ন হয়। বিয়ের রেজিস্ট্রি না হলেও স্থানীয় মসজিদের মুয়াজ্জিন হাফেজ শামসুল হক এ বিয়ে পড়ান। গত ১ সপ্তাহ ধরে চলছে তাদের সংসার। সোমবার সরেজমিন ওই গ্রামের গিয়ে এ বাল্যবিয়ের সতত্যা পাওয়া যায়।

জানা যায়, সখীপুরের কাকড়াজান ইউনিয়নের চকপাড়া গ্রামের প্রবাসী মঞ্জরুল ইসলামের ছেলে পার্কি মনির উদ্দিন উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র মানিক মিয়ার সঙ্গে প্রতিবেশী প্রবাসী বছির উদ্দিনের মেয়ে

একই প্রতিষ্ঠানের নবম শ্রেনির ছাত্রী নাজমা আক্তার লিজার প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। প্রেমের সম্পর্ক মেনে নিয়ে উভয় পরিবারের সম্মতিতে এ বিবাহ সম্পন্ন করা হয়।বরের দাদা আবুল হোসেন বলেন, ‘নাতি প্রেম করেছে, কতদিন আর দূরে রাখুম। বিয়ে করিয়ে বাড়ি নিয়ে এসেছি। ’

কাকড়াজান ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান তরিকুল ইসলাম বিদ্যুত এবং ওই সংশ্লিষ্ট ওয়ার্ডের ইউপি সদস্য মো. শাহ্আলম বিষয়টি জানেন না বলে দাবি করেন।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আসমাউল হুসনা লিজা বলেন, ‘বিষয়টি জানা নাই। ঘটনা সত্য হলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও জানান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা।