ঢাকার বাইরে করোনা চিকিৎসার তাহলে এই অবস্থা!

করোনা রোগীর সংখ্যা যত বাড়ছে ততই ঢাকার বাইরে চাপ পড়ছে। বিশেষ করে বিভিন্ন মহানগরীগুলোতে চিকিৎসার প্রয়োজনীয়তা বাড়ছে এবং হাসপাতালের চাহিদা বাড়ছে। কিন্তু এই পরিস্থিতিতে দেখা যাচ্ছে যে,

ঢাকার বাইরে অধিকাংশ হাসপাতালগুলো প্রস্তুত নয়। করোনা সংক্রমণ সারাদেশে ছড়িয়ে পড়েছে। এখন এটা শুধু ঢাকা শহরে নয়। বরং ঢাকার বাইরের শহরগুলোতেও করোনা রোগীর সংখ্যা বাড়ছে।

এই পরিস্থিতিতে নতুন চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। কারণ করোনা নিয়ে যে চিকিৎসা ব্যবস্থা তাঁর পুরোটাই ঢাকাকেন্দ্রিক, ঢাকার বাইরে চিকিৎসা ব্যবস্থা নেই বললেই চলে। বিশেষ করে যারা গুরুতর অসুস্থ হবে তাঁদের জন্য আইসিইউ, ভেন্টিলেশন বা অক্সিজেনের ব্যবস্থা করা যাবেনা অধিকাংশ প্রত্যন্ত অঞ্চলে।

সাবেক স্বাস্থ্যমন্ত্রী আ ফ ম রুহুল হক বলেছেন যে, যারা ঢাকার বাইরের জটিল রোগী তাঁদের জন্য চিকিৎসা ব্যবস্থা এক কঠিন বাস্তবতা। কারণ ঢাকার বাইরে কি অবস্থা আছে তা আমরা জানি।

ইতিমধ্যে চট্টগ্রামের স্বাস্থ্যব্যবস্থা প্রায় ভেঙে পড়ার উপক্রম হয়েছে। চট্টগ্রামে যদি এই অবস্থা হয় তাহলে দূর মফস্বলগুলোতে কি অবস্থা হবে! দেখা যাচ্ছে যে গত কয়েকদিনে ঢাকার বাইরের রোগীর সংখ্যা ক্রমশ বাড়ছে। এই পরিস্থিতিতে ঢাকার বাইরের চিকিৎসা কিভাবে হবে তা নিয়ে এখনই ভাবা উচিত বলে মনে করছেন একাধিক বিশেষজ্ঞরা।

তবে বিশেষজ্ঞরা এটাও বলছেন যে, এটা আগেই চিন্তা করা উচিত ছিল। হঠাত করে চটজলদি নতুন করে আইসিইউ বেড, ভেন্টিলেশন সিস্টেম বা অক্সিজেন সাপোর্ট দেয়া সম্ভব নয়। আর এর ফলে যে পরিস্থিতি তৈরি হবে,

সেই পরিস্থিতি এক কথায় ভয়ঙ্কর। ঢাকা নির্ভর আমাদের চিকিৎসা ব্যবস্থায় করোনা সংক্রমণে সারাদেশ ব্যাপী বিস্তৃতি আমাদের নতুন সঙ্কটে ফেলতে যাচ্ছে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।