পরিত্যক্ত ঘর থেকে গর্ভবতী যুবতী উদ্ধার!

গত শনিবার (৪ এপ্রিল) রাস্তার পাশে পড়ে থাকা অপ্রকৃতস্থ এক গর্ভবতী মহিলাকে পরম মমতায় হাসপাতাল নিয়ে চিকিৎসার ব্যবস্থা করছে বেলাব থানা পুলিশ। পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত ৪/৫ দিন যাবৎ বেলাব থানাধীন নারায়নপুর বাসষ্ট্যান্ডের রাস্তার পার্শ্বে একটি পরিত্যক্ত ঘরের সামনে ৩০/৩২ বৎসরের অজ্ঞাত মরণাপন্ন মহিলা ৮/৯ মাসের গর্ভবতী পড়ে থাকলেও কেউ কোন সাহায্যের জন্য এগিয়ে আসেনি।

বেলাবো থানা পুলিশ বিষয়টি জানতে পেরে বেলাবো থানার অফিসার ইনর্চাজ তাৎক্ষণিক থানা থেকে ২জন মহিলা পুলিশ নিয়ে ডিউটিরত অফিসারের গাড়িতে করে নরসিংদী সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন।নরসিংদীর পুলিশ সুপার, প্রলয় কুমার জোয়ারদার, বিপিএম-বার, পিপিএম অসুস্থ মহিলার খোঁজ খবর নিয়ে হাসপাতালের প্রসুতি ইউনিটে ভর্তি করার ব্যবস্থা করে দেন।

আরো পড়ুন :হাসপাতালের ড্রাম থেকে নবজাতক উদ্ধার-

বরগুনা জেনারেল হাসপাতালে পরিত্যক্ত ব্লিচিং পাউডারের একটি ড্রাম থেকে জীবিত ছেলে নবজাতক উদ্ধার করেছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। কিন্তু জীবত পাওয়ার চার ঘন্টা পর শিশুটি মৃত্যু হয়। রোববার (৫ এপ্রিল) বেলা ১২টার দিকে হাসপাতালের বাথরুমের সামনে রাখা একটি ড্রাম থেকে শিশুটিকে উদ্ধার করা হয়ছিল।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, ব্লিচিং পাউডারের কারণে শিশুটির শরীরের এক পাশ পুড়ে গেছে। হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. সোহরাব উদ্দিন বলেন, গত কয়েকদিনে দুইজন মাত্র প্রসূতি মা ভর্তি হয়েছিলেন। ডেলিভারির পর তারা সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন। কিন্তু কারা এই বাচ্চা ফেলে গেছে এখনো বলা যাচ্ছে না। ব্লিচিং পাউডারের কারণে শিশুটির শরীরের এক পাশ পু’ড়ে যাওয়ায় শিশুটিকে বাচানো যায়নি।

ডা. সোহরাব উদ্দিন আরও বলেন নবজাতকের বয়স মাত্র কয়েক ঘণ্টা। সুযোগ বুঝে বাইরে থেকে কেউ এসে রেখে গেছে। পুলিশকে বিষয়টি জানানো হয়েছে। হাসপাতালের সিসিটিভি ফুটেজ দেখে আমাদের অনুসন্ধান চলছে।