ক’রোনা সং’ক্রমণে দেশের বর্তমান যে অবস্থান!

সারা বিশ্বের মতো বাংলাদেশেও ছড়িয়ে পড়েছে ক’রোনাভা’ইরাস। প্রতিদিন গড়ে হাজার তিন থেকে সাড়ে তিন হাজারের মতো টেস্ট করা হচ্ছে। এতে যে পরিমাণে আ’ক্রান্তের সংখ্যা দেখা যাচ্ছে, তা রীতিমতো উ’দ্বেগজ’নক। আজ শুক্রবার পর্যন্ত আ’ক্রান্তের সংখ্যায় বিশ্বে ৪৭তম স্থানে আছে বাংলাদেশ।

যা আরও বেশি শ’ঙ্কার। বাংলাদেশের ঠিক আগেই আছে পানামা (আ’ক্রান্ত ৬,১৬৬) এবং ডমেনিকান রিপাবলিক (আ’ক্রান্ত ৫৫৪৩)। গত ২৪ ঘণ্টায় বাংলাদেশে রেকর্ডসংখ্যক ৫০৩ জন রো’গী স’নাক্ত হয়েছে। মোট নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৩৬৮৬টি। মা’রা গেছেন ৪ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৪ জন।

এখন পর্যন্ত মোট নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে ৩৯৭৭৬টি। এসব নমুনা পরীক্ষা থেকে ক’রোনা আ’ক্রান্ত রো’গী স’নাক্ত হয়েছে মোট ৪৬৮৯ জন। মোট মৃ’ত্যু হয়েছে ১৩১ জন। মোট সুস্থ হয়েছেন ১১২ জন। সুস্থতার বিপরীতে মৃ’ত্যুহারে দক্ষিণ এশিয়ায় বাংলাদেশই এগিয়ে। ইতোমধ্যেই সরকারি ছুটি ৬ মে পর্যন্ত বর্ধিত করা হয়েছে। পুলিশ-সেনাবাহিনী মানুষকে ঘরে রাখার চেষ্টা করে যাচ্ছে।

তবে দেশের অধিকাংশ মানুষই এই লকডাউন মানছেন না। বিভিন্ন অজুহাতে তারা ঘর থেকে বের হচ্ছেন। অকারণেই ঘুরছেন। দুদিন আগেই স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেছেন, বাংলাদেশ এখন সেই ভ’য়া’নক সময়ে এসে পড়েছে, যে সময়টিতে ইউরোপ-আমেরিকায় ক’রোনা দ্রু’ত ছড়িয়ে পড়ে। এই ভা’ইরাসের থেকে বাঁচতে ঘরে থাকার বিকল্প নেই।