আমেরিকার ২৬টি র’ণতরীতে করোনার থা’বা!

মহাসাগরে মোতায়েন করা মার্কিন র’ণতরীতেও পৌঁছে গেছে করোনাভাইরাস। যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনীর বিমানবাহী র’ণতরী ইউএসএস থিওডোর রুজভেল্টে এক সেনার করোনাভাইরাস হওয়ার পর আরও ২৬টি র’ণত’রীতে করোনা ধরা পড়েছে।

মার্কিন সংবাদমাধ্যম সিএনএন তাদের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানায়। প্রতিবেদনে বলা হয়, মার্কিন নৌবাহিনীর এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, মহাসাগরে মোতায়েন ২৬টি যু’দ্ধজাহাজে বাহিনীর সদস্যরা করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। তবে আক্রান্ত জাহাজগুলোর নাম প্রকাশ করেননি ওই কর্মকর্তা।

বর্তমানে আমেরিকার ২৯৭ র’ণতরী সমুদ্রে মোতায়েন রয়েছে, কমপক্ষে ৪০টি র’ণতরীতে করোনা ছড়িয়েছিল বলে তথ্য দেয় সিএনএন। গত বুধবার পর্যন্ত মার্কিন নৌবাহিনীতে কর্মরত তিন হাজার পাঁচশ ৭৮ জনের শরীরে করোনা সং’ক্রমণ ছড়িয়েছে। তাদের মধ্যে আটশজনই র’ণতরী ইউএসএস থিওডোর রুজভেল্টের।

মার্কিন নৌবাহিনীর এক উচ্চপদস্থ আধারিক এই বিষয়ে সেদেশের সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছে যে বর্তমানে ২৬টি এমন যু’দ্ধজাহাজ রয়েছে যাতে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন বাহিনীর সদস্যরা। তবে আক্রান্তদের নাম প্রকাশ করতে চাননি সেই আধিকারিক। এমন কী আক্রান্ত জাহাজগুলির নামও প্রকাশ করা হয়নি।

এদিকে এই ২৬টি জাহাজ ছাড়াও আরও ১৪টিতে এই করোনা ভাইরাসের মা’রণ থাবা বসেছিল বলেও জানিয়েছেন সেই মার্কিন আধিকারিক। যদিও তাঁর দাবি সেই ১৪টি জাহাজে থাকা করোনা আক্রান্তরা সুস্থ হয়ে ওঠায় সং’ক্রমণ আর ছড়ায়নি। বর্তমানে আমেরিকার ২৯৭ র’ণতরী কর্তব্যরত আছে।

এখনও পর্যন্ত মার্কিন সেনা বা নৌবাহিনীর ৩৫৭৮ জনের শরীরে করোনা সংক্রমণ ছড়িয়েছে। এদের মধ্যে ৮০০ জনই র’ণতরী ইউএসএস থিওডোর রুজভেল্টের। এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ১৭৩৮ জনের দেহে নতুন করে করোনার আক্রমণ হয়েছে। যার জে’রে রীতিমতো ত্র’স্ত গোটা দেশ। ইতিমধ্যেই সেখানে ৫০ হাজার ছাড়িয়েছে মৃতের সংখ্য। এমন পরিস্থিতিতে উ’দ্বেগ বাড়ছে।

করোনার যু’দ্ধে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র সবচেয়ে বেশি খা’রাপ পরিস্থিতি পার করেছে, এই বার্তা ট্রাম্প দেওয়ার পরেও আমেরিকায় লা’ফিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। ইতিমধ্যেই সেদেশে আক্রান্তের সংখ্যা ৮ লাখ পার করে গিয়েছে।