শরীরে জ্বর নিয়ে ঢাকাফেরত স্বামীকে ঘর থেকে বের করে দিলেন স্ত্রী!

করোনা আত’ঙ্কে বগুড়ার আদমদীঘিতে ঢাকাফেরত রাজমিস্ত্রী স্বামীর শরীরে জ্বর থাকায় ঘর থেকে বের করে দিলেন স্ত্রী। ওই ব্যক্তির শরীরে করোনা ভাইরাস রয়েছে কিনা এ নিয়ে গতকাল সোমবার সকাল থেকে ওই গ্রামে তোলপাড়ের সৃষ্টি হয়েছে। ওই গ্রামের দুবাই ও ঢাকাফেরত আরো দুই ব্যক্তি গত ২০ মার্চ নিজ বাড়িতে এসে তাদের আত্মগোপন করে রাখেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

জানা যায়, আদমদীঘির কেশরতা গ্রামের মোজাম্মেল হকের ছেলে কাবিল উদ্দীন ঢাকা থেকে শরীরে জ্বর নিয়ে সোমবার ভোরে ট্রাকযোগে বাড়িতে আসেন। বাড়ি আসার পর তার শরীরে জ্বর রয়েছে, কথাটি শুনে তার স্ত্রী ঘর থেকে তাকে বের করে দিয়ে ঘরের দরজা বন্ধ করে রাখেন। এছাড়া একই গ্রামের দুবাইফেরত নজরুল ইসলামের ছেলে ইউসুফ আলী ও ঢাকা ফেরত বয়েজ উদ্দীনের ছেলে মেরিন প্রকৌশলী মেহেদী হাসান গত ২০ মার্চ নিজবাড়িতে এসে তারা আত্মগোপন করেন।

এ নিয়ে হৈচৈ শুরু হলে এলাকায় তোলপাড়ের সৃষ্টি হয়। বিষয়টি স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান জিল্লুর রহমানকে অবগত করার পর তিনি উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. শহীদুল্লাহ দেওয়ানের শরনাপন্ন হন এবং পুরো মেডিক্যাল টিম নিয়ে কেশরতা গ্রামে যান। সেখানে ওই তিন পরিবারের সাথে কথা বলে ও শরীর পরীক্ষা করে তাদের তেমন কোন উপসর্গ নেই বলে দাবী স্বাস্থ্য কর্মকর্তার।

পরে ওই তিন পরিবারের সকলকে ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টিনে রেখে বাড়িগুলোতে লাল পতাকা উড়িয়ে দেন। এছাড়া হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকা তিন পরিবারকে ১৪ দিনের খাবারের দায়িত্ব নেন ইউপি চেয়ারম্যান জিল্লুর রহমান।