গ্রে’প্তার করতে গিয়ে আ’সামির বাবাকে র’ক্ত দিলেন এসআই

চট্টগ্রামে হ’ত্যা মা’মলার এক আ’সামিকে গ্রে’প্তার করতে গিয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন তার বাবাকে র’ক্ত দিলেন আকবর শাহ থানার উপপরিদর্শক (এসআই) বদিউল আলম। শনিবার রাতে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে।

গ্রে’প্তার আ’সামির নাম এমদাদ হোসেন। তার বাড়ি নোয়াখালীর সেনবাগ উপজে’লার বীর নারায়ানপুর গ্রামের। ২০১৯ সালের ২৫ অক্টোবর আকবরশাহ থানার কৈবল্যধাম রেললাইন এলাকার রশিদ কলোনিতে ছু’রিকাঘাতে খু’ন হন জসিম উদ্দিন নামের এক যুবক। এমদাদ ওই মা’মলার এজাহারভুক্ত আ’সামি।

এসআই বদিউল আলম সমকালকে বলেন, এমদাদ হোসেন চার মাস ধরে আত্মগো’পনে ছিলেন। গো’পনে জানতে পারি চট্টগ্রাম মেডিকেলে চিকিৎসাধীন তার বাবাকে দেখতে আসবেন তিনি। তার আসার আগ থেকেই হাসপাতালে গিয়ে ওঁৎ পেতে থাকি। আসার সঙ্গে সঙ্গে তাকে গ্রে’প্তার করি। এ সময় এমদাদ জানায়, তার বাবার অপারেশন হয়েছে। র’ক্ত সংগ্রহ করতে হাসপাতালে এসেছেন তিনি।

বদিউল বলেন, ‘তার বাবার র’ক্তের গ্রুপের সঙ্গে আমার র’ক্তের গ্রুপ মিলে যাওয়ায় তার বাবাকে র’ক্ত দিই। পরে এমদাদকে আ’দালতে পাঠানো হলে আ’দালত তাকে কা’রাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।’

এসআই আরও বলেন, ‘আমি প্রশংসিত হওয়ার জন্য র’ক্ত দিইনি। তাকে গ্রে’প্তার করে নিয়ে এলে হয়তো র’ক্ত জোগাড় করা সম্ভব হবে না। এতে তার অ’সুস্থ বাবার ক্ষ’তি হতে পারে। আমার র’ক্তের গ্রুপ যেহেতু একই তাই র’ক্ত দিয়েছি। আ’সামির বাবা বিবেচনা নয়, মানুষ বিবেচনায় র’ক্ত দিয়েছি। এটা ওর বাবা না হয়ে অন্য যে কেউ হলেও র’ক্ত দিতাম।’