ওয়ানডে বিশ্বকাপ এককভাবে আয়োজন করবে বাংলাদেশ!

ওয়ানডে বিশ্বকাপ এককভাবে আয়োজন করবে বাংলাদেশ!

আইসিসির বড় ইভেন্টগুলো গত ২০১৬ সাল থেকে ২০২৩ সাল পর্যন্ত ভাগ করে নেয় বিগ থ্রি ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া ও ভারত। কিন্তু ২০২৪ সাল থেকে এই নিয়ম আর থাকছেনা। আগামী ২০২৪ থেকে ২০৩১ সাল পর্যন্ত আইসিসির ইভেন্টগুলোর আয়োজক দেশ নির্ধারণ হবে বিডিং সিস্টেমের মাধ্যমে। যেখানে বাংলাদেশের লক্ষ্য ২০২৩ বিশ্বকাপের পরের বিশ্বকাপটি এককভাবে বিডিং করে নিজেদের দেশে নিয়ে আসা।

এদিকে আগামী ২০২৪ থেকে ২০৩১ এই আট বছরে ছেলেদের ও মেয়েদের বিশ্বকাপ, টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ এবং অনূর্ধ্ব-১৯ যুবদল মিলিয়ে মোট ২৪টি ইভেন্টের জন্য বিডিং প্রক্রিয়ায় যাবে আইসিসি। বাংলাদেশ এই প্রক্রিয়ায় যাবে বলে আগ্রহটা আগেই জানিয়ে দিয়েছে বিসিবি।

আর সেই কারণেই বাংলাদেশের অবস্থা পর্যবেক্ষণ করতে তিনদিনের বাংলাদেশ সফরে এসেছে আইসিসির তিন সদস্যের প্রতিনিধি দল। দলটির নেতৃত্বে রয়েছেন আইসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মনু সনি, সঙ্গে আছেন সংস্থাটির প্রধান বাণিজ্যিক কর্মকর্তা ক্যাম্পবেল জেসিমন।

এ ব্যাপারে আইসিসির এই কর্মকর্তাদের সাথে আলাপ করে বিসিবি সভাপতি বলেস, ‘বাংলাদেশ অবশ্যই আইসিসি ইভেন্ট আয়োজনের জন্য বিড করবে। আমাদের সুবিধা হলো টেস্ট খেলুড়ে দেশ হিসেবে আমাদের অবকাঠামো উন্নয়নে তেমন বিনিয়োগ লাগবে না। বিশ্বকাপ আয়োজন করতে হলে অন্ততপক্ষে ৮টি মাঠের প্রয়োজন। আমরা সুবিধাজনক অবস্থানেই আছি।’

এদিকে আইসিসির বৈশ্বিক ইভেন্ট আয়োজনে দেশের নিরাপত্তা নিয়ে নাজমুল হাসান, ‘নিরাপত্তা সংক্রান্ত বিষয়ে বাংলাদেশ অনেক সুবিধাজনক অবস্থানে আছে। ভারত হলেও তাদের ক্ষেত্রে নিরাপত্তার বিষয়টি আসে। কারণ বিড রেটিং যখন করা হবে নিরাপত্তা একটি গুরুত্বপূর্ণ ফ্যাক্টর হবে।’

এ সময় বিসিবি সভাপতিই জানিয়েছেন, আইসিসি প্রতিনিধি দলটির প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গেও সাক্ষাৎ করার কথা। তাছাড়া বিডিংয়ের বিষয়টি নিশ্চিত করতে আইসিসি আগ্রহী সব দেশেই যাচ্ছে বলে জানা গেছে। ইতিমধ্যে আইসিসি প্রতিনিধি দল মালয়েশিয়াও ঘুরে এসেছে। অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, যুক্তরাষ্ট্রসহ আগ্রহী সব দেশেই তারা যাবে।